অনলাইন পরামর্শ উপলব্ধ
এখনই বুক করুন

অনলাইন পরামর্শ উপলব্ধ
এখনই বুক করুন

ভারতে ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার খরচ কত পড়ে?


Speak To Our Expert

Please enter your contact information.

আপনি কি জানেন ব্রণর ক্ষতচিহ্ন, পোড়ার দাগ, দুর্ঘটনায় হওয়া ক্ষত, কালো-সাদা দাগওয়ালা ক্ষত দূর করার জন্য বিভিন্ন স্কিন ক্লিনিকে নানা ধরণের চিকিৎসা পাওয়া যায়? এই আর্টিকলটি পড়ে জেনে নিন ভারতে কতরকম ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসা পাওয়া যায় এবং তাদের প্রতি সেশনের খরচ কত। এছাড়া এটাও জেনে নিন যে লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসাকে অন্যান্য পদ্ধতির তুলনায় কেন বেশি ভাল বলা হয়।

 

আপনি ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসা কেন করাতে চান?

 

আপনার যদি নিম্নলিখিত ক্ষতচিহ্নগুলির মধ্যে কোনোটি থাকে তবে আপনি ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসায় আগ্রহী হতে পারেন।

 

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন – আপনার যদি কিশোর বয়সে বা একটু বড় বয়সে নিয়মিত ব্রণ হয়ে থাকে, তবে আপনার মুখে এধরণের ক্ষতচিহ্ন থাকতে পারে। ব্রণর ক্ষত নানারকম হতে পারে- গভীর গর্ত, ‘V’ আকারের গর্ত, অনিয়মিত আকারের বা ঢেউখেলানো। ব্রণর ক্ষত আপনার ত্বকের মসৃণতা নষ্ট করে আপনার সৌন্দর্যহানি করতে পারে, তাই এর চিকিৎসার চাহিদা যথেষ্টই।

 

অন্যান্য – ব্রণ ছাড়া অন্য কোন আঘাত, পুড়ে যাওয়ার দাগ, কেটে যাওয়া ও আঁচড় লাগার দাগ, বসন্তের দাগ, কোন সার্জারির (surgery) দাগ (যেমন সিজারিয়ান সেকশন) বা সেলাইয়ের দাগ আপনার ত্বকের সৌন্দর্য নষ্ট করতে পারে।

 

 

ক্ষতচিহ্ন সংস্কার চিকিৎসা কীভাবে সহায়তা করতে পারে?

 

চর্মবিজ্ঞানের অগ্রগতির ফলে এখন ক্ষতচিহ্ন ঠিক করার বেশ কিছু চিকিৎসাপদ্ধতি আবিষ্কৃত হয়েছে। এই পদ্ধতিগুলিকে দুই ভাগে বিভক্ত করা যায় – সার্জিক্যাল (surgical) ও নন-সার্জিক্যাল (non-surgical) । এগুলির উপকারিতা ও খরচও ভিন্ন ধরণের। প্রশ্ন হল, লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসা অন্যগুলির থেকে আলাদা কেন। আসুন এই লেজার প্রক্রিয়া ও তার উপকারিতার ব্যাপারে দাগ অপসারণের জন্য লেজার পদ্ধতি এবং এর সুবিধাগুলি বিশদভাবে জানা যাক।

 

লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়া কিভাবে কাজ করে?

 

লেজার চিকিৎসাতে উচ্চ-শক্তিসম্পন্ন কেন্দ্রীভূত আলো (high-intensity focused light) নিয়ন্ত্রিতভাবে ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যুর (tissue) উপর ব্যবহার করা হয়। এর থেকে তৈরি হওয়া তাপশক্তিকে ত্বকের গভীর স্তরগুলি শোষণ করে নেয়।

 

এর ফলে ত্বকের ফাইব্রোব্লাস্ট (fibroblast) কোষগুলি উজ্জীবিত হয়ে কোলাজেন তৈরি করতে শুরু করে এবং ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যুটিকে নতুন ভাবে গঠন করে। ক্ষতচিহ্ন আকারে ছোট হয়ে যায়, ত্বকের মসৃণতাও বাড়ে।

 

লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়া দিয়ে আমরা সব ধরণের ব্রণর ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসা করতে পারি -অ্যাট্রফিক (atrophic) বা হাইপারট্রফিক (hypertrophic) হলেও।

 

বসন্তের দাগের চিকিৎসাতেও লেজার কার্যকরী। ডাক্তাররা লেজার প্রক্রিয়ার সাথে প্রয়োজনে অন্য চিকিৎসাপদ্ধতি যুক্ত করতে পারেন।

 

বিভিন্ন ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়ার ব্যাপারে জানতে ভিডিওটি দেখুন।

 

লেজার দ্বারা ব্রণর ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার খরচ

 

লেজার দ্বারা ব্রণর ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার প্যাকেজের (package) দাম ভারতে ৭,০০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকা প্রতি সেশন হতে পারে-কতটা জায়গা জুড়ে চিকিৎসা করা হচ্ছে তার উপর ভিত্তি করে। তবে আপনার ক্ষতচিহ্ন কি ধরণের, কত বড়, কোন পদ্ধতিতে চিকিৎসা করা হচ্ছে এবং কতগুলি সেশন প্রয়োজন তার উপর নির্ভর করে এই মূল্য পরিবর্তন হতে পারে।

অন্যান্য ক্ষতচিহ্নের লেজার চিকিৎসার খরচ

বসন্তের দাগের লেজার চিকিৎসার প্যাকেজ ৬,০০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকার মধ্যে পড়ে।

পুড়ে যাওয়া ক্ষতচিহ্নের লেজার চিকিৎসার খরচ পড়ে ১০,০০০ টাকা থেকে ৩০,০০০ টাকার মধ্যে।

দুর্ঘটনা/আঘাতের ক্ষতচিহ্নের লেজার চিকিৎসার খরচ হল ৫,০০০ টাকা থেকে ২০,০০০ টাকার মধ্যে।

 

দয়া করে মনে রাখবেন উপরের মূল্যগুলি প্রতীকী মাত্র। ক্লিনিকের অবস্থান ও খ্যাতি, চর্মবিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের অভিজ্ঞতা ও ব্যবহৃত লেজার প্রযুক্তির উপর নির্ভর করে এই মূল্য পরিবর্তন হতে পারে। লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার সঠিক মূল্য জানতে একটি নামকরা স্কিন ক্লিনিকে খোঁজ নিন।

 

ভারতের কয়েকটি বড় শহরে এই লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়ার তুলনামূলক খরচ জানতে নীচে দেখুন।

 

ব্রণর ক্ষতচিহ্নর জন্য লেজার চিকিৎসার মূল্য (সেশন পিছু)

শহর-সর্বনিম্ন-সর্বোচ্চ

 

ব্যাঙ্গালোর-৭,০০০ টাকা-২০,০০০ টাকা

চেন্নাই-৭,০০০ টাকা-২০,০০০ টাকা

হায়দ্রাবাদ-৭,০০০ টাকা-২০,০০০ টাকা

কোচি-৫,০০০ টাকা-১৮,০০০ টাকা

মুম্বাই-৮,০০০ টাকা-২২,০০০ টাকা

এনসিআর (দিল্লি)-৮,০০০ টাকা-২২,০০০ টাকা

পুনে-৬,০০০ টাকা-১৮,০০০ টাকা

বিশাখাপত্তনম-৫,০০০ টাকা-১৭,০০০ টাকা

কলকাতা-৭,০০০ টাকা-২০,০০০ টাকা

বিজয়ওয়াড়া-৫,০০০ টাকা-১৫,০০০ টাকা

 

লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার মূল্য পরিবর্তন হয় কেন?

 

এই লেজার চিকিৎসার খরচ পরিবর্তনশীল হওয়ার পিছনে আছে নিম্নলিখিত কারণগুলি-

 

ক্ষতচিহ্নের মাপ – ক্ষতচিহ্নের মাপ অনুযায়ী আমরা কোন চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহার করবো এবং কটি সেশন লাগবে সেটি ঠিক করি। এর জন্য খরচ বেড়ে যেতে পারে।

 

ক্ষতচিহ্নের গভীরতা- যে ক্ষতগুলি ত্বকের গভীর অবধি বিস্তৃত তার চিকিৎসায় বেশি সংখ্যক সেশন লাগবে, অতএব খরচও বেশি হবে।

 

ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতি- বিভিন্ন প্রকারের ক্ষতচিহ্ন থাকলে একাধিক চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহার করা যেতে পারে। সেই অনুযায়ী মূল্য বাড়তে পারে।

 

ডাক্তারের অভিজ্ঞতা- এই ধরণের চিকিৎসায় প্রশিক্ষিত এবং অভিজ্ঞ ডাক্তারের পারিশ্রমিক বেশি হয়।

 

ক্লিনিকের অবস্থান- বড় শহর ও সমৃদ্ধ এলাকায় অবস্থিত ক্লিনিকে অত্যাধুনিক সৌন্দর্যচিকিৎসার ব্যবস্থা থাকায় তারা অধিক মূল্য চাইতে পারে।

 

 

অন্যান্য ক্ষতচিহ্ন সংস্করণ প্রক্রিয়া তাদের মূল্য

 

চর্মবিশেষজ্ঞদের অনুমোদিত আরও কিছু ক্ষতচিহ্ন সংস্করণ প্রক্রিয়া ও তাদের মূল্য সম্পর্কে জানতে নীচে পড়ুন।

 

 

কেমিক্যাল পিল (chemical peel) – ত্বকের উপরের মৃত কোষের আস্তরণটি পরিষ্কার করতে চর্মবিশেষজ্ঞরা উদ্ভিদ থেকে নিষ্কাশিত রাসায়নিক ব্যবহার করেন। এই চিকিৎসাতে ত্বক থেকে কালো-বাদামি দাগ অনেকাংশে দূর করা সম্ভব। কেমিক্যাল পিলের সেশন পিছু ৩,০০০ টাকা থেকে ৭,০০০ টাকা খরচ পড়ে ।

মাইক্রোনিডলিং রেডিওফ্রিকোয়েন্সি/এমএনআরএফ (Micro-needling Radiofrequency/MNRF) – রেডিওফ্রিকোয়েন্সি উৎপন্ন বিদ্যুতের সাহায্যে ত্বকের ডার্মিসে (dermis) উত্তপ্ত থার্মাল জোন (thermal zone) তৈরি করে ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসা করা হয়। উৎপাদিত তাপ নতুন কোলাজেন তৈরি করতে সাহায্য করে যার ফলে ত্বকের টেক্সচারের (texture) উন্নতি হয়। ক্ষতচিহ্নের জন্য এমএনআরএফ চিকিৎসার খরচ পড়ে সেশন পিছু ১০,০০০ টাকা থেকে ২৫,০০০ টাকা।

মাইক্রোডার্মাব্রেশন (Microdermabrasion) – এই হালকা ঘর্ষণজনিত (abrasive) চিকিৎসা করে ত্বকের উপরের মৃত কোষের স্তরটি তুলে ফেলা হয় যাতে নিচে নতুন মসৃণ ত্বক দেখা দেয়। ক্ষতচিহ্নের জন্য মাইক্রোডার্মাব্রেশন চিকিৎসার খরচ পড়ে মোটামুটি প্রতি সেশনে ২,০০০ টাকা থেকে ৫,০০০ টাকা।

 

ডার্মাল ফিলার (Dermal fillers) – ডাক্তাররা ত্বক থেকে নিচে বসে যাওয়া ক্ষতচিহ্নকে ভরাট করে তোলার জন্য, তাতে হায়ালুরনিক অ্যাসিড (hyaluronic acid) ভরা ফিলার ইনজেকশন দিতে পারেন। এই চিকিৎসার ফল দীর্ঘস্থায়ী হয় না, কারণ কয়েক মাস থেকে এক বছরের মধ্যে দেহের এনজাইম (enzyme) এই হায়ালুরনিক অ্যাসিডকে ভেঙে দেয়। ডার্মাল ফিলার দিয়ে ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসার খরচ পড়তে পারে প্রতি সেশনে ২০,০০০ টাকা থেকে ১,০০,০০০ টাকা অবধি (ব্র্যান্ডের উপর নির্ভর করে)।

 

স্কিন গ্রাফটিং (skin grafting) – এটি একটি জটিল ক্ষতচিহ্ন অপসারণের সার্জিক্যাল প্রক্রিয়া। দেহের যে অংশে বেশি চর্বি আছে, যেমন উরু, সেখান থেকে গ্রাফট নিয়ে সংশ্লিষ্ট জায়গায় প্রতিস্থাপন করা হয়। ডাক্তাররা পোড়ার ক্ষত বা আঘাত লাগার ক্ষতচিহ্নের জন্য এই পদ্ধতি ব্যবহার করে থাকেন। এই সার্জারিগুলি ইনভেসিভ (invasive), খরচসাপেক্ষ এবং এর থেকে সেরে উঠতে সময় লাগে। স্কিন গ্রাফটিং চিকিৎসার খরচ পড়ে ৫০,০০০ টাকা থেকে ১,০০,০০০ টাকা অবধি।

 

কেটে বাদ দেওয়া (excision) – এতে ক্ষতচিহ্নের নষ্ট হয়ে যাওয়া টিস্যু কেটে বাদ দিয়ে বাকি চামড়াটিকে একাধিক স্তরে যথাযথ ভাবে সেলাই করে দেওয়া হয়। এর খরচ পড়ে প্রতি সেশনে ১৫,০০০ টাকা থেকে ২৫,০০০ টাকা।

 

টপিক্যাল অ্যাপ্লিকেশন (Topical application) – সিলিকন দেওয়া ক্ষতচিহ্ন অপসারণের মলম দোকানে কিনতে পাওয়া যায়, তবে ব্যবহার করার আগে ডাক্তারকে জিজ্ঞাসা করা উচিত। মলমের ফলাফল খুব ভাল হয়না কারণ লেজার যেভাবে ত্বকের গভীরে ঢুকে চিকিৎসা করতে পারে, মলম তা পারেনা। ব্র্যান্ড ও উপাদানের উপর নির্ভর করে মলমের দাম ৯০০ টাকা থেকে ৭,০০০ টাকা অবধি হতে পারে।

 

 

একজন ডাক্তার ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতি ও মাপ দেখে ঠিক করেন কোন চিকিৎসা পদ্ধতি ব্যবহার করা উচিত। লেজার চর্ম চিকিৎসা সূক্ষ্মতা ও কার্যকারিতার জন্য অনেকেরই এটি প্রথম পছন্দ। তবে আপনার চর্মবিশেষজ্ঞ আরও ভাল ফল পাওয়ার জন্য এর সাথে এমএনআরএফ ও কেমিক্যাল পিলও যোগ করতে পারেন।

 

 

লেজার বনাম অন্যান্য ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসা

 

লেজার চিকিৎসার সূক্ষ্মতা ও কার্যকারিতার জন্য ক্ষতচিহ্ন অপসারণে খুব ভাল কাজ করে। তবে আপনার চর্মবিশেষজ্ঞ আরও ভাল ফল পাওয়ার জন্য এর সাথে এমএনআরএফ ও কেমিক্যাল পিলও যোগ করতে পারেন।

 

লেজার চিকিৎসায় পাওয়া সুবিধাগুলি হল:

 

দ্রুত প্রক্রিয়া– অসাড় করার মলম লাগানো সহ লেজার চিকিৎসার প্রস্তুতি এবং চিকিৎসার প্রক্রিয়া পুরোটা শেষ করতে একটি সেশনে লাগে কমবেশি ২ ঘন্টা।

খুব কম ডাউনটাইম (downtime) – প্রক্রিয়ার পর সেরে উঠতে বিশেষ সময় লাগেনা। চিকিৎসা পরবর্তী সহায়তা ও উপদেশ অনুসরণ করলে এই সময়টি আরো কমানো সম্ভব।

কার্যকরী ফলাফল – ৬-৮টি সেশন চিকিৎসার পর আপনি নিজেই ক্ষতচিহ্নের আকারে স্পষ্ট পরিবর্তন দেখতে পাবেন। তবে আপনার ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতি ও মাপের উপর নির্ভর করে আপনার ডাক্তার ঠিক করে দেবেন মোট কতগুলি সেশন আপনার প্রয়োজন।

ননসার্জিক্যাল প্রক্রিয়া– এটি নন-ইনভেসিভ এবং প্রক্রিয়াটির সময় রোগীর খুব একটা অসুবিধাও হয়না। এতে কোন কাটা ছেঁড়া বা রক্তপাতের ব্যাপার থাকেনা।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই অত্যাধুনিক ইউএস এফডিএ (US FDA) অনুমোদিত লেজার প্রযুক্তি ব্যবহার হওয়ার কারণে এটি খুবই নিরাপদ এবং এতে সংক্রমণ বা পুড়ে যাওয়ার মতো সমস্যা হয়না।

সুবিধাজনক – অন্যান্য ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়ার তুলনায় এটি অনেক বেশি সুবিধাজনক।

সূক্ষ্ম – অভিজ্ঞ চর্মবিশেষজ্ঞরা আপনার প্রয়োজন অনুযায়ী লেজার চিকিৎসার প্যারামিটার (parameter) ঠিক করে দেন, যাতে আশেপাশের স্বাভাবিক ত্বকের কোন রকম ক্ষতি না হয়।

বহুমুখী– সব ধরণের ভারতীয় ত্বকের পক্ষে উপযোগী।

 

 

এবার আপনি লেজার ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার প্রক্রিয়া, উপকারিতা ও খরচের ব্যাপারে সব জেনে গেছেন। নিজের ক্ষতচিহ্ন দূর করার জন্য যদি অত্যাধুনিক এস্থেটিক (aesthetic) সমাধান চান, তবে আজই অলিভা স্কিন এবং হেয়ার ক্লিনিকে অ্যাপয়েন্টমেন্ট বুক করুন।

 

ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার ব্যাপারে প্রায়ই জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন (FAQ)

 

সমস্ত ক্ষতচিহ্নেরই কি চিকিৎসা করা সম্ভব?

হ্যাঁ, লেজার রিসারফেসিং-এর মাধ্যমে সব ধরণের ক্ষতচিহ্নের ভালভাবে চিকিৎসা করা সম্ভব। তবে কোন পদ্ধতি ব্যবহার করা উচিত ও কতটা উন্নতি হতে পারে তা নির্ভর করে ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতি ও মাপের উপর।

 

আধুনিক চিকিৎসাপদ্ধতির সাহায্যে কি ক্ষতচিহ্ন সম্পূর্ণ নির্মূল করা যায়?

লেজার চিকিৎসার সাহায্যে ক্ষতচিহ্ন আকারে এতটা কমিয়ে দেওয়া যায় যাতে চোখেই না পড়ে; বিশেষতঃ যদি হালকা, ছোট ক্ষত হয়। লেজার রিসারফেসিং-এ ক্ষতচিহ্ন পুরো নিশ্চিহ্ন না হলেও অনেকটাই কমানো সম্ভব।

 

এই চিকিৎসার জন্য উপযুক্ত কে?

১৮ বছরের বা তার বেশি বয়সী যে কোনো ব্যক্তি ব্রণর ক্ষতচিহ্নের জন্য এই চিকিৎসা করাতে পারেন। তবে গর্ভবতী ও স্তন্যদাত্রী মহিলাদের এটি করানো উচিত না।

 

আপনি কি ধরণের ফলাফল আশা করতে পারেন?

লেজার, এমএনআরএফ ও কেমিক্যাল পিলের মত নন-সার্জিক্যাল চিকিৎসা পদ্ধতিতে ক্ষতচিহ্নের অনেক উন্নতি হওয়া সম্ভব। প্রতি সেশনের পর ফল ক্রমশঃ ভাল হয়।

 

এই চিকিৎসায় কত সময় লাগে?

চিকিৎসার সময় আপনার ক্ষতচিহ্নের মাপ, অবস্থান ও ব্যবহৃত প্রযুক্তির উপর নির্ভর করে। সাধারণতঃ চর্মবিশেষজ্ঞরা ৬-৮টি সেশন ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার পরামর্শ দেন; দুটি সেশনের মধ্যে এক মাসের বিরতি থাকে।

 

একজনের কটি সেশন চিকিৎসার প্রয়োজন হয়?

ডাক্তাররা সাধারণতঃ ৬-৮টি সেশন লেজার চিকিৎসার পরামর্শ দেন।

 

ক্ষতচিহ্ন সংস্কার প্রক্রিয়ার কি কি ঝুঁকি বা জটিলতা থাকতে পারে?

ক্ষতচিহ্ন সংস্কার চিকিৎসা নিরাপদ ও কার্যকরী, এর বিশেষ কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হয় না। ঝুঁকি-বিহীন অভিজ্ঞতার জন্য একটি নামকরা ক্লিনিকে অভিজ্ঞ চর্মবিশেষজ্ঞর সাথে পরামর্শ করুন।

 

ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসার পর ফলোআপ ভিজিট (follow-up visits) করা প্রয়োজন?

নন-সার্জিক্যাল ক্ষতচিহ্ন অপসারণ চিকিৎসায় ডাউনটাইম খুব কম থাকে ও মেন্টেনেন্স (maintenance) সেশনের প্রয়োজন হতে পারে। তবে সার্জিক্যাল প্রক্রিয়া করলে আপনার সার্জেন (surgeon) আপনাকে ফলোআপে ডাকতে পারেন।

 

ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়ার কতদিন পর স্বাভাবিক জীবনে ফেরা সম্ভব?

নন-সার্জিক্যাল ক্ষতচিহ্ন অপসারণ প্রক্রিয়ার কোন ডাউনটাইম নেই, স্বাভাবিক জীবনে কোন বাধা পড়েনা। সার্জারি করলে কয়েকদিন হাসপাতালে থাকার প্রয়োজন হতে পারে।

 

সেশনের পর কি ক্ষতচিহ্নের কোন উন্নতি দেখা যেতে পারে?

দ্বিতীয় বা তৃতীয় সেশনের পর থেকে আপনি ধীরে ধীরে ত্বকের ও ক্ষতচিহ্নের স্পষ্ট উন্নতি দেখতে পাবেন।

 

ক্ষতচিহ্ন নির্মূল করতে হলে কি প্লাস্টিক সার্জারিই (plastic surgery) একমাত্র পদ্ধতি?

না। বেশ কিছু নন-সার্জিক্যাল চিকিৎসাপদ্ধতি আছে যেমন ফ্র্যাক্সেল লেজার রিসারফেসিং (Fraxel laser resurfacing), এমএনআরএফ এবং টিসিএ ক্রস পিল (TCA Cross peel) যাতে ক্ষতচিহ্নের দৃশ্যমান উন্নতি করা সম্ভব।

 

UPTO 50% Off on Laser Hair Removal
UPTO 50% Off on Laser Hair Removal

Was this article helpful?

About The Author


Subscribe to Newsletter

Expert guide to flawless skin and nourished hair from our dermatologists!