34424
page-template/template_concern_page.php

0
page-template/template_concern_page.php

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন- কারণ, প্রকারভেদ ও চিকিৎসা

Highlights

  • ● বয়স, লিঙ্গ ও ত্বকের প্রকৃতি নির্বিশেষে ব্রণ হল ক্ষতচিহ্নের প্রথম কারণ।
  • ● পৃথিবীর প্রায় ৯০% জনসংখ্যা টিনএজে (teenage) ব্রণর সমস্যায় ভোগে এবং তার ফলে মুখে, কপালে, নাকে, বুকে, পিঠে ক্ষতচিহ্ন দেখা দেয়।
  • ● এই ক্ষতচিহ্নগুলি ব্রণর পরে ত্বকে একটি স্থায়ী পরিবর্তন হিসাবে থেকে যায়।
  • ● ব্রণর ক্ষতচিহ্নের ফলে ত্বকে গর্ত, উঁচু ক্ষতচিহ্ন বা দাগ থেকে যেতে পারে।
  • ● ব্রণর ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসা একজন চর্মবিশেষজ্ঞর কাছে করানো উচিত। ব্রণর ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতির উপর নির্ভর করে চিকিৎসায় ৩-২৪ মাস অবধি লাগতে পারে।
  • ● হালকা ব্রণর ক্ষতচিহ্ন সহজে দূর করা যায়, কিন্তু পুরোনো ও গভীর ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসায় উন্নতি পেতে বেশ কয়েকটি সেশন (session) লাগতে পারে।

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন কি এবং কেন হয়?

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন হল ব্রণ কমে যাওয়ার পর যে দাগ বা চিহ্ন থেকে যায়। যখন ত্বকে অতিরিক্ত তেল (sebum), মৃত কোষ ও জীবাণু জমে ত্বকের পোরস (pores) গুলি আটকে দেয় এবং প্রদাহ (inflammation) সৃষ্টি করে তখন ব্রণ দেখা দেয়। হালকা ব্রণর পরে কালো দাগ বা হাইপারপিগমেন্টেশন (hyperpigmentation) থেকে যেতে পারে। তবে গভীর ব্রণ হলে কোলাজেনের (collagen) ক্ষতি হয়ে ত্বকের মসৃণতা নষ্ট হয়ে দীর্ঘস্থায়ী চিহ্ন হয়ে যায়।

যেহেতু ৯০% টিনএজার (teenager) ব্রণর সমস্যায় ভোগে, ব্রণর ক্ষতচিহ্ন অনেকের মুখেই পাওয়া যায় এবং চিকিৎসার প্রয়োজন হয়। তবে ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসা করার আগে ব্রণ কমানো একান্তই প্রয়োজন। আসুন ব্রণর ক্ষতচিহ্নর শ্রেণীবিন্যাস ও চিকিৎসার ব্যাপারে জানার আগে দেখা যাক এগুলি হয় কি কারণে।

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন হওয়ার কারণ কি?

ত্বকের সেরে ওঠার ক্ষমতার উপর নির্ভর করে যে কোন তীব্রতার ব্রণ ক্ষতচিহ্নের জন্ম দিতে পারে। তবে আপনার এ ধরণের ক্ষতচিহ্ন হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে যদি:

  • আপনার খুব বেশি ব্রণ হয় বিশেষতঃ যদি সিস্ট (cyst) বা নডিউল (nodule) হয়।
  • প্রদাহযুক্ত ব্রণ হওয়ার পর আপনি চিকিৎসা করাতে দেরি করেন।
  • আপনি ব্রণ টিপে বা খুঁটে থাকেন।
  • আপনার পরিবারে ব্রণ ও ক্ষতচিহ্ন হওয়ার হিস্ট্রি (history) আছে।

আপনি যদি উপরে লেখা পরিস্থিতিগুলির মধ্যে কোনটির মুখোমুখি হয়ে থাকেন তবে আপনার ক্ষতচিহ্ন হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। নিচে পড়ে দেখুন আপনার কি ধরণের ক্ষতচিহ্ন থাকতে পারে, কারণ চিকিৎসাপদ্ধতি তার উপরই নির্ভর করে ঠিক করা হয়।

ব্রণর ক্ষতচিহ্নের শ্রেণীবিন্যাস ও প্রকারভেদ

ব্রণর পর সুস্থ হয়ে ওঠার সময় ত্বকে কোলাজেনের পরিমাণের উপর নির্ভর করে দুই ধরণের ক্ষতচিহ্ন হতে পারে- অ্যাট্রফিক (atrophic)(বসে যাওয়া) বা হাইপারট্রফিক (hypertrophic)(উঁচু হয়ে থাকা)। মাত্র ১০% ক্ষতচিহ্ন হাইপারট্রফিক হয়, তাদেরকে কিলয়েড (keloid) নামেও ডাকা হয়।

বিশেষজ্ঞ চর্মবিদরা অ্যাট্রফিক ক্ষতচিহ্নকে নিম্নলিখিত ভাবে ভাগ করেন:

  • আইসপিক (ice pick) ক্ষতচিহ্ন বলা হয় সরু ও সোজা ক্ষতচিহ্নকে; এর ধারগুলি তীক্ষ্ণ হয় এবংএগুলি ব্যাসে ২ মিমি বা আরও কম হয়।
  • রোলিং (rolling) ক্ষতচিহ্ন বলা হয় গর্তের মত ক্ষতচিহ্নগুলিকে; এর ব্যাস ৫ মিমি অবধি হতে পারে এবং এগুলি আকারে ঢেউখেলানো ও গোলাকৃতি হয়।
  • বক্সকার (boxcar) ক্ষতচিহ্ন হল রোলিং ক্ষতচিহ্নের চেয়েও বড়; এর ধারগুলি সুস্পষ্ট ও ধারালো এবং চওড়ায় ১.৫-৪ মিমি অবধি হতে পারে।

ক্ষতচিহ্ন সংস্কার প্রক্রিয়ার সফলতা নির্ভর করে ক্ষতচিহ্নের প্রকার ও গভীরতার উপর।

ব্রণর ক্ষতচিহ্নের প্যাথোফিজিওলজি (Pathophysiology)

ক্ষতচিহ্ন তৈরি হয় যখন দেহ একটি আঘাতের পর ত্বককে সারিয়ে তুলতে চেষ্টা করে। এটি ব্রণ, পুড়ে যাওয়া, জলবসন্ত, টীকা নেওয়া বা সার্জারির (surgery) ফলে হতে পারে। ব্রণর ক্ষতচিহ্ন অ্যাট্রফিক বা গভীর গর্তের মত হতে পারে, ত্বক ঠিক হওয়ার সময় কোলাজেন কম থাকার জন্য। হাইপারট্রফিক ক্ষতচিহ্ন উঁচু, মোটা ও দলা পাকানো হয় এবং এটি দেখা যায় ব্রণ সেরে যাওয়ার পর অতিরিক্ত কোলাজেন তৈরি হয়ে যাওয়ার ফলে।

সাধারণ লক্ষণ ও উপসর্গ

আপনার যদি ব্রণ হওয়ার প্রবণতা থাকে তবে এই ক্ষতচিহ্নের লক্ষণ ও উপসর্গগুলি আপনার মুখ, বুক বা পিঠে দেখা যেতে পারে:

  • ত্বকে গভীর গর্ত
  • ত্বকের উপর উঁচু হয়ে থাকা ক্ষতচিহ্ন
  • ব্রণ কমে যাওয়ার পর থেকে যাওয়া গাঢ় কালো দাগ

চিহ্নিত করা (diagnosis)

চিকিৎসা না করলে ব্রণ খুব বেশি হয়ে যেতে পারে, ত্বকে কোলাজেনের দীর্ঘস্থায়ী ক্ষতি হয়ে ক্ষতচিহ্নের সৃষ্টি হতে পারে। একজন চর্মবিশেষজ্ঞ পরীক্ষা করলে চট করে ব্রণর ক্ষতচিহ্ন চিনে নিতে পারেন। তিনি ক্ষতচিহ্ন হালকা, মধ্যম না তীব্র সেটিও বলতে পারেন এবং সেই অনুযায়ী একটি চিকিৎসাপদ্ধতির পরামর্শ দিতে পারেন।

ব্রণর ক্ষতচিহ্নের প্রতিরোধ ও চিকিৎসা

কিছু ছোটখাটো টিপস (tips) রইল যা অনুসরণ করে আপনি নিজের ব্রণ প্রবণ ত্বককে ক্ষতচিহ্নের থেকে রক্ষা করতে পারবেন:

  • ব্রণ বেরোলে সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তারের পরামর্শ নিন।
  • ব্রণ টেপার বা খোঁটার ইচ্ছে দমন করুন।
  • মামড়ি (scab) ধরে টানবেন না।
  • ঘরোয়া সমাধান নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা করবেন না; এতে প্রদাহ বেড়ে যেতে পারে।

এই টিপস গুলি কাজ না করলে, এবং আপনার ব্রণ থেকে ক্ষতচিহ্ন দেখা দিলে ডাক্তারি সমাধান খোঁজার সময় এসেছে।

নিজে যত্ন করা

দুর্ভাগ্যবশত ঘরোয়া সমাধান, দোকানে কেনা সামগ্রী ও নিজে করা অন্যান্য প্রক্রিয়ার নিরাপত্তা ও কার্যকারিতা নিয়ে কোন বৈজ্ঞানিক প্রমাণ নেই। এগুলি এড়িয়ে চলাই ভাল নাহলে নতুন ব্রণ বেরোনো, ক্ষতচিহ্ন বেড়ে যাওয়া বা খারাপ কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হওয়ার সম্ভাবনা থাকতে পারে।

ব্রণর ক্ষতচিহ্নের বিভিন্ন বিকল্প চিকিৎসাপদ্ধতি

অলিভার চর্মবিশেষজ্ঞরা সব ধরণের ব্রণর ক্ষতচিহ্ন কমানোর জন্য মেডিকো-এস্থেটিক (medico-aesthetic) সমাধানের পরামর্শ দিতে পারেন। তাঁরা নিম্নলিখিত প্রক্রিয়াগুলির একটি বা একাধিক অনুসরণ করার পরামর্শ দিতে পারেন, আপনার ত্বক ও ক্ষতচিহ্নের প্রকৃতি, গভীরতা ও অবস্থানের উপর নির্ভর করে।

  • পিক্সেল লেজার স্কিন রিসারফেসিং (Pixel laser skin resurfacing): আমাদের বিশিষ্ট চর্মবিদরা অত্যাধুনিক ইউএসএফডিএ (USFDA) অনুমোদিত লেজার প্রযুক্তির মাধ্যমে ক্ষতিগ্রস্ত টিস্যুতে (tissue) নতুন কোলাজেন তৈরি করেন।
  • কেমিক্যাল পিল (chemical peel): আমাদের অভিজ্ঞ ডাক্তারি টিম (team) উদ্ভিদ-নিষ্কাশিত রাসায়নিক দিয়ে ত্বকের ক্ষতিগ্রস্ত স্তরগুলি এক্সফোলিয়েট (exfoliate) করে দিতে পারেন। টিসিএ ক্রস পিল (TCA Cross peel) হল আইস পিক ক্ষতচিহ্ন কমানোর জন্য একটি বিশেষ চিকিৎসা।
  • মাইক্রোনিডলিং রেডিওফ্রিকোয়েন্সি (Microneedling Radiofrequency): এই অত্যাধুনিক ক্ষতচিহ্ন চিকিৎসাপদ্ধতিতে ত্বক টানটান হওয়ার লাভও পাওয়া যায়! এতে রেডিওফ্রিকোয়েন্সি প্রযুক্তি ব্যবহার করে ব্রণর ক্ষতচিহ্নের চিকিৎসা করা হয় এবং ত্বকের মসৃণতারও উন্নতি করা হয়।
  • সাবসিশন (subcision): এটি একটি অত্যল্প ইনভেসিভ (invasive) প্রক্রিয়া যার মাধ্যমে আমাদের অভিজ্ঞ ডাক্তাররা ব্রণর ক্ষতচিহ্নের গভীরতা উল্লেখযোগ্যভাবে কমাতে সক্ষম।
  • ইন্ট্রালিশনাল ইনজেকশন (intralesional injection): আমাদের পেশাদার ডাক্তারি টিম বিশেষ ইনজেকশনের সাহায্যে উঁচু হয়ে যাওয়া ক্ষতচিহ্নগুলি আকারে কমিয়ে দিতে পারে।
  • লেজার টোনিং (laser toning): এতে আধুনিক লেজার প্রযুক্তির সাহায্যে ত্বকের সাথে সমান, লাল বা কালো ক্ষতচিহ্ন কমানো যায়। এতে ব্রণর পর ত্বকের বিবর্ণতাও কমানো যায়।

ব্রণর ক্ষতচিহ্ন চিকিৎসার পূর্ব ও পরবর্তী যত্নের নির্দেশাবলী

অলিভার চর্মবিশেষজ্ঞরা হোলিস্টিক (holistic) চিকিৎসাপদ্ধতি অনুসরণ করেন এবং চিকিৎসা-পূর্ব ও পরবর্তী যত্নের জন্য যথোপযুক্ত নির্দেশ দেন যাতে অল্প ডাউনটাইম ও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সহ আপনি ভালো ফল পেতে পারেন।

প্রায়ই জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন (FAQ)

  • আধুনিক চিকিৎসায় ব্রণর ক্ষতচিহ্ন সারানো যায়?

হ্যাঁ, অলিভায় অনুসৃত আধুনিক ক্ষতচিহ্ন দূর করার চিকিৎসায় আপনার ত্বকের সুস্থ হয়ে ওঠার ক্ষমতা বাড়িয়ে ক্ষতচিহ্নের গভীরতা কমানো ও ত্বকের মসৃণতার উন্নতি করা সম্ভব।

  • ব্রণর ক্ষতচিহ্ন কি স্বাভাবিকভাবে নিজে নিজে কমে যায়?

না, অধিকাংশ ব্রণর ক্ষতচিহ্ন নিজে নিজে কমে না, এবং কমাতে ডাক্তারদের কাছে বিভিন্ন প্রক্রিয়া করাতে হয়।

  • ভিটামিন এ কি ব্রণর ক্ষতচিহ্ন দূর করতে সাহায্য করে?

হ্যাঁ, আপনার চর্মবিশেষজ্ঞ প্রক্রিয়ার সাথে টপিকাল লাগানোর (topical) ওষুধ দিতে পারেন যাতে ভিটামিন এ আছে, এতে ক্ষতচিহ্ন সফলভাবে কমানো সম্ভব।

  • ব্রণর ক্ষতচিহ্ন কি চিরস্থায়ী?

সকল গ্রেডের (grade) ব্রণতেই কিছু না কিছু ক্ষতচিহ্ন হতে পারে।

  • আধুনিক চিকিৎসাপদ্ধতিতে ব্রণর ক্ষতচিহ্ন সম্পূর্ণভাবে নিরাময় করা সম্ভব?

হ্যাঁ, অলিভাতে ক্ষতচিহ্ন সংস্কার প্রক্রিয়াতে আপনার ত্বকের ক্ষতচিহ্ন ৯০% পর্যন্ত কমানো সম্ভব। তবে আপনার পরিস্থিতির গুরুত্ব কতটা এবং ক্ষতচিহ্ন হওয়া ও তার চিকিৎসার মধ্যে কতখানি সময়ের ব্যবধান আছে তার উপর নির্ভর করে ফলাফল ভিন্ন হতে পারে।

Want a callback?Please fill this form

Subscribe to Newsletter

Expert guide to flawless skin and nourished hair from our dermatologists!